logo
Blog single photo

ভারতের ম্যাচ ভুলে ওমানে নজর ফুটবলারদের

বিশ্বকাপ বাছাই থেকে বাদ আগেই, ভারতের কাছে হেরে শেষ হয়েছে এশিয়ান কাপের পরবর্তী রাউন্ডে ওঠার আশাও। ওমানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচের ফলাফল যাই হোক, বাংলাদেশকে খেলতে হবে এশিয়ান কাপের প্লে-অফ।

শেষ তিন ম্যাচের প্রতিপক্ষের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী ওমানের বিপক্ষে বাংলাদেশ খেলতে নামবে ১৫ জুন। আফগানিস্তান ও ভারতের বিপক্ষে পারফরম্যান্সই বলে দিচ্ছে, ওমানের বিপক্ষে কেমন করতে পারে দল।


তবে ফুটবল ম্যাচে যে কোনো দিন যে কোন কিছু ঘটতে পারে-এই মন্ত্র বুকে ধারণ করে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা শেষ ম্যাচে মাঠে নামবে ওমানের বিপক্ষে।

ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ খেলেছে যাচ্ছেতাই ফুটবল। স্মরণকালে প্রতিবেশি দেশটির সঙ্গে এত বাজে ফুটবল খেলেনি বাংলাদেশ। দুই বছর আগে কলকাতার মাঠে ভারতের বিপক্ষে কি ফুটবল খেললো জামাল ভূঁইয়ারা, আর কাতারে নিরপেক্ষ মাঠে খেললো কী!

এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে দেশের ফুটবলমোদীরা। তবে ওমানের বিপক্ষে খেলতে নামার আগে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি ভুলেই যেতে চাইছেন ফুটবলাররা। তাদের এখন সব নজর ওমানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে।

মিডফিল্ডার মো. আবদুল্লাহ যেমন বললেন, ‘ভারতের ম্যাচটা আসলেই আমরা ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করব। আমাদের চিন্তাভাবনা সামনের ম্যাচ নিয়ে। কোচ সেভাবেই কাজ করছেন এবং ওমানের বিপক্ষে কিভাবে খেললে ভালো হবে, সেটাই আমাদের বোঝাচ্ছেন। আমাদের কোন কোন পজিশনে কি কি দুর্বলতা আছে, কোচ সেটা নিয়ে অনুশীলনে কাজ করছেন।’


ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে ৪ জন নিয়মিত ফুটবলার হারিয়েছে দল। অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া, ডিফেন্ডার রহমত মিয়া ও মিডফিল্ডার বিপলু আহমেদ হলুদকার্ডে নিষিদ্ধ এবং মাসুক মিয়া জনির চোট। যে কারণে ওমানের বিপক্ষে নতুন একটা দলই নামাতে হবে জেমি ডে’কে।

‘ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের পর কয়েকজন কার্ড ও ইনজুরিতে বাদ পড়েছেন। এখন আমার যারা মিডফিল্ডে আছি, তাদের জন্য বড় দায়িত্ব ও চ্যালেঞ্জ মনে করি। আমরা যদি পজিটিভ ফুটবল খেলতে পারি সেটাই গুরুত্বপূর্ণ হবে। আমরা যে যার জায়গায় থেকে শতভাগ পজিটিভ ফুটবল খেললে আশা করি ভালো একটা লড়াই হবে’-বলছিলেন আবদুল্লাহ।
Top